মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

১.কুমিল্লা প্রদ্ধতির আদলে মানব সম্পদকে যুগপযোগী করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে সাংগঠনিক অবকাঠামো সৃজন।

২.সমিতি/দল(পুরুষ/মহিলা) গঠন, ঋণ গ্রহণে পরামর্শ প্রদান ও এতদসংক্রান্ত তথ্য এবং ফরম সরবরাহ ।

৩.সদস্যদের শেয়ার ও সঞ্চয় আমানত সংগ্রহের মাধ্যমে নিজস্ব পুঁজি গঠনে সহায়তা করণ।

৪.সমিতির সদস্য/সদস্যাকে সহজ শর্তে কৃষি উত্পাদন ও কৃষি উপকরণের জন্য (সার,বীজ,কীটনাশক এবং সেব যন্ত্রপাতি) ঋণ প্রদান (ক) সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে সৃষ্টি ঋণ,

       (খ) আবর্তক ক্ষুদ্র ঋণের ব্যবস্থা করণ।

৫.বিভিন্ন প্রকল্প/কর্মসূচির আওতায় অনানুষ্ঠানিক দল গঠন এবং উত্পাদনমুখী ও আয়বৃদ্ধি সম্পর্কে কর্মকান্ডের জন্য ঋণ প্রদান।

৬.আনুষ্ঠানিক সমিতির নিবন্ধনের পরপরই এবং অনানুষ্ঠানিক দল গঠনের ০৮(আট) সম্পাহ পর সদস্যদের ঋণ প্রদান করা হয়।

৭.সমবায়ীদের উত্পাদিত পণ্যের বাজার জাত করণের সুযোগ সৃষ্টি এবং ন্যায্য মূল্য প্রাপ্তিতে সহায়তা।

৮.নারীর ক্ষমতায়ন ও নারীর নেতৃত্ব বিকাশে সচেতনতা বৃদ্ধি, নারী নির্যাতন রোধ ও যৌতুক প্রথা নির্মূলে সচেনতা বৃদ্ধিতে সহায়তা।

৯.সদস্যদের বয়স্ক শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও পরিবার পরিকল্পনা ইত্যাদি বিষয়ে পরামর্শ ও সেবা।

১০.বৃক্ষরোপন ও স্যানিটেশন সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি সল্পে পরামর্শ ও সহযোগিতা।

১১.অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পোষ্য আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে নামমাত্র সেবা মূল্যের বিনিময়ে ঋণ প্রদান।

১২.গ্রামীণ দরিদ্র মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সহযোগিতা প্রদান এবং গ্রামীণ নেতৃত্বের বিকাশ ও দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়রেন দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে সম্পৃক্ত করণ।

১৩.উপজেলা অফিসের কোন কমকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কমকর্তার নিকট উত্থাপন করা হলে তার প্রতিকার করা হবে।

১৪.ঋণ পেতে হলে সদস্য/সদস্যাকে আবদনে করতে হবে। আবেদন পত্র পাওয়ার পর দল/সমিতির ব্যবস্থাপনা কমিটি সভঅয় যাচাই বাছাই করে সভার সিদ্ধান্ত অনুলিপি সহ উপজেলা দপ্তরে পাওয়া গেলে উপজেলা ঋণ প্রদান অনুমোদন কমিটির সভার অনুমোদন করার পর চেক/নগদে ঋণ বিতরণ করা হয়।